Breaking News
Home / Health / ভাত খাওয়ার পর ত্যাগ করুন এই বদঅভ্যাসগুলো- তা না হলেই বি’পদ

ভাত খাওয়ার পর ত্যাগ করুন এই বদঅভ্যাসগুলো- তা না হলেই বি’পদ

কথাতেইতো আছে ভেতো বাঙালির ভাত ছাড়া চলা দায়। বাঙালি মানেই ভাতের ওপর যেন এক অদ্ভুত টান আছে। চাইনিস হোক বা মোঘলাই কিংবা অন্য কোনও ডিস দিনের কোনও এক সময়ে ভাত চাই-ই চাই। আর তারপর একটা লম্বা ভাত ঘুম। কিন্তু জানেন কি ভাত খাওয়ার পর অনেকগুলো ভুল কাজ আমরা নিজের অজান্তে করে থাকি।

কাজগুলো কি কি তা জেনে নিন-প্রথমেই জেনে রাখুন ভাতঘুম একেবারেই ঠিক নয়। ভাত খাওয়ার পরপরই ঘুমিয়ে পড়া খুবই খারাপ অভ্যাস। এর ফলে শরীরে মেদ জমে যায়। সঙ্গে সঙ্গে ঘুমিয়ে পড়লে খাবার ভালোভাবে হজম হয় না। ফলে গ্যাস্ট্রিক এবং ইন্টেস্টাইনে ইনফেকশন হয়।

জল বা জল জাতীয় খাবার খাবেন না। ভাত খাওয়ার অনুপাতে হাওয়া ও জলের জন্য পেটে কিছুটা জায়গা রাখা উচিত। তাই খেয়ে উঠেই ভরপেট জল পান না করে ১০-১৫ মিনিট পর পান করাই ভালো। এতে হজমেও বেশ কাজে দেয়।খাবার শেষ করার পরপরই ফল খাবেন না। ভরা পেটে ফল কথাটা প্রচলিত থাকলেও তা ভালো কাজে দেবে না।

এতে পেটে গ্যাস হতে পারে। খাবার খাওয়ার অন্তত এক থেকে দুই ঘণ্টা পর ফল খাওয়া উচিত। ভাত খাওয়ার পরপরই ধূমপান করবেন না। সারাদিনে অনেকগুলো সিগারেট খেলে যতটুকু না ক্ষতি করবে, তার চাইতে অনেক বেশী ক্ষতি করবে যদি ভাত খাবার পর করেন।

ভাত খাবার পর ১টা সিগারেট আর সার্বিকভাবে ১০টা সিগারেটের সমান অর্থ বহন করে। খেয়ে উঠেই চা খাবেন না। চায়ের মধ্যে প্রচুর পরিমানে টেনিক অ্যাসিড থাকে যা খাবারের প্রোটিনের পরিমাণকে ১০০ গুণ বাড়িয়ে তোলে। যার ফলে খাবার হজম হতে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশী সময় লাগে। হাঁটা চলা করবেন না।

অনেকেই বলে থাকেন খাবার পর ১০০ কদম হাটা মানে আয়ু ১০০ দিন বাড়িয়ে ফেলা। কিন্তু আসলে বিষয়টা পুরোপুরি সত্য নয়। খাবার পর হাঁটা উচিত , তবে অবশ্যই সেটা খাবার শেষ করেই তাত্ক্ষণিকভাবে নয়। খাবার পরপরই ব্যায়াম করা ঠিক নয়। খাবার পরপরই কোমড়ের বেল্ট কিংবা প্যান্টের কোমর আলগা করবেন না।

খাবার পরপরই বেল্ট কিংবা প্যান্টের কোমর আলগা করলে অতি সহজেই ইন্টেসটাইন (পাকস্থলি থেকে মলদ্বার পর্যন্ত খাদ্যনালীর নিম্নাংশ ) বেঁকে যেতে পারে, পেঁচিয়ে যেতে পারে অথবা ব্লকও হয়ে যেতে পারে। যাকে বলে ইন্টেস্টাইনাল অবস্ট্রাকশন। খাবার গ্রহণের পরপরই স্নান করবেন না।

কারণ খাওয়ার পরপরই স্নান করলে শরীরের রক্ত সঞ্চালন মাত্রা বেড়ে যায়। এর ফলে পাকস্থলির চারপাশের রক্তের পরিমাণ বেড়ে যায়। ঔষধ খাবেন না। ভাত খাওয়ার পরপরই ঔষধ খাওয়া উচিত নয় বলে মনে করে অনেক চিকিত্সক। কারণ ভাত পরিপাকের জন্য প্রস্তুত হতে কিছুটা সময় নেয়।

এসময় পরিপাকের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন অ্যাসিড ক্ষরিত হয়। ফলে ঔষধের সাথে এগুলো মিলে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হতে পারে। খাবার খাওয়ার ২০ থেকে ২৫ মিনিট পর ঔষধ খাওয়াটাই ভালো।

About Admin

Check Also

এই ১০টি সাধারন লক্ষণই বলে দেবে আপনার কিডনি ড্যামেজ হতে চলেছে, আজই সতর্ক হন

কিডনির অসুখকে নিরব ঘাতক বলা হয়। চুপিসারে এই রোগ আপনার শরীরে বাসা বেঁধে আপনাকে শেষ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You cannot copy content of this page