Sunday , December 4 2022
Home / Exception / মাত্র তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করে কবিতা মহাকাব্য রচনায় পদ্মশ্রী পেয়েছেন ইনি

মাত্র তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করে কবিতা মহাকাব্য রচনায় পদ্মশ্রী পেয়েছেন ইনি

সর্বদা শিক্ষাই মানুষকে সব জ্ঞান দিতে পারেনা। জ্ঞান মানুষের ভেতরেই থাকে। বই সেটিকে ব্যক্ত করার একটি মাধ্যম মাত্র। আজ আমরা আপনাদের এমনই এক ব্যক্তির গল্প বলতে যাচ্ছি তিনি নিজেই একজন জ্ঞানের সমুদ্র।

তিনি 2016 সালে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির কাছ থেকে পদ্মশ্রী পুরস্কার পেয়েছিলেন। তিনি নিজে স্কুল শিক্ষা অর্জন করতে পারেননি কিন্তু তিনি যখন লেখা শুরু করলেন তখন তার আসল জ্ঞানকে সবাই বুঝতে পারলেন। তিনি হলেন 66 বছর বয়সী উড়িষ্যার কবি হলধর নাগ। তার জীবনের গল্প খুবই অনুপ্রেরণামূলক।

তিনি বলেছিলেন যে জ্ঞান মানুষের জন্ম থেকেই নিজের ভেতরে থাকে শুধু সেটিকে খুঁজে নিতে হয়। তিনি কুড়িটি মহাকাব্য লিখেছেন এবং অনেক কবিতা লিখেছেন। তার লেখা বইগুলি সম্বলপুর বিশ্ববিদ্যালয় পাঠক্রম করানো হয়। কোন প্রতিভাই কখনো বইয়ের ওপর নির্ভর করে না শুধু। তিনি একজন অতি দরিদ্র পরিবারের সন্তান।

10 বছর বয়সেই তার মা-বাবা মারা যায় এবং তাকে তখন পড়াশোনা ছেড়ে দিতে হয়। তিনি তখন একটি মিষ্টির দোকানে কাজ শুরু করেন। এরপর তাকে একজন একটি স্কুলে নিয়ে যায় রান্নার কাজ করানোর জন্য। এরপর তিনি সেখানে 16 বছর কাজ করেন এবং পরে 100 টাকা দিয়ে একটি দোকান খোলেন যেখানে বাচ্চাদের জিনিস রাখতেন তিনি। তিনি নিজের আসল প্রতিভা বুঝতে পারেন 1990 সালে।

তিনি ধোডো বারগাচ নামের একটি কবিতা লেখেন এবং সেটিকে স্থানীয় ম্যাগাজিনে প্রকাশ করেন। তার এই কবিতাগুলি মানুষ খুবই পছন্দ করেন এবং জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এটি তার উৎসাহ কে আরো বাড়িয়ে ছিল এবং তিনি আরো লিখতে শুরু করেন। উড়িষ্যা রাজ্যে তাকে লোককবি রত্ন নামে সবাই চেনে। তিনি খুবই সাধারণ জীবন যাপন করতে পছন্দ করেন। তার কাছ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার বাকি রয়েছে এখনো। তিনি নতুন প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা।

Check Also

একেই বলে বন্ধুত্বের ভালোবাসা! বাড়ির পোষ্য কুকুরের সাথে লুকোচুরি খেলছে ছোট্ট মেয়ে, ভাইরাল ভিডিও

স্যোশাল মিডিয়ায় মাঝেমধ্যেই ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়।তাতে তেমন হাসি মজার খোড়াক থাকে,তেমন‌ই থাকে সুপ্ত ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *