Friday , December 2 2022
Home / Lifestyle / রাত্রে দুধ পান করার বিশেষ উপকারিতা। জানলে অবাক হবেন

রাত্রে দুধ পান করার বিশেষ উপকারিতা। জানলে অবাক হবেন

“দুধ না খেলে, হবে না ভালো ছেলে” – চন্দ্রবিন্দুর এই গানটা তো সবাই শুনেছেন নিশ্চই! তবে কিনা, শুধু ‘ভালো ছেলে’ তকমা পাবার জন্য না, শরীর ভালো রাখতে ছেলে-মেয়ে সবারই নিয়ম করে দুধ খাওয়া উচিত। অনেকেই সকাল সকাল দুধ আর কর্ণফ্লেক্স দিয়ে ব্রেকফাস্ট সারেন, আবার কেউ দুধের সাথে কোন হেলথ ড্রিঙ্ক মিশিয়ে খান তো কারও পছন্দ সাদা প্লেন দুধ। তাছাড়া সারাদিনে চা কিম্বা কফিতেও দুধ মিশিয়ে খাওয়া হয়েই যায়। তবে দুধ খাওয়ার উপকারিতা টের পাবেন যদি নিয়ম করে প্রতিদিন রাত্রে শুতে যাবার আগে দুধ খান।

রাত্রে ঘুম না হওয়ার সমস্যা অধিকাংশ মানুষই ভোগেন যার ওপরে পরদিন কাজের ক্ষেত্রে। উপযুক্ত পরিমাণে শারীরিক ক্ষমতার যোগান পাওয়া যায় না। তবে চিকিৎসকরা বলেছেন খাওয়া-দাওয়া সামান্য পরিবর্তন আনলে এই ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। বেশ কিছু গবেষনায় দেখা গিয়েছে যে, ঘুমের সমস্যা হয় ক্যালসিয়ামের ঘাটতির কারণে আর তাদের ক্ষেত্রে রাত্রে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস দুধ পান করা ভালো কারণ এর মধ্যে রয়েছে ক্যালসিয়াম এবং এটি আপনাকে গভীরভাবে ঘুমাতে সাহায্য করে।

তবে রাত্রে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস দুধ খেলে কেবল মাত্র ঘুমাতে সাহায্য করে না আরো অনেক শারিরীক সমস্যার দূর করে তোলে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। তাহলে চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক –

১. ভালো ঘুমের জন্য

অনেকের মধ্যেই অনিদ্রারোগ বা ইন্সম্নিয়া দেখা যায়। সেক্ষেত্রে কিন্তু বেশিরভাগ ডাক্তার পরামর্শ দেন রাতে শুতে যাবার আগে এক গ্লাস গরম দুধ খাবার। দুধে যে বায়োঅ্যাক্টিভ প্রপারটিস থাকে তা স্ট্রেস কমিয়ে ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে।

২. শরীরকে শান্ত করে

সারাদিন ধকলের পর যখন আমরা ক্লান্ত হয়ে পড়ি এই ক্ষেত্রে দুধ যথেষ্ট কার্যকরী। কারণ গরম দুধের মধ্যে

হওয়া পেশিগুলো সতেজ হয়ে উঠতে থাকে। এছাড়াও এক বিশেষ ধরনের হরমোন নিঃসৃত হয় যার কারণে গভীর ঘুম হতে সহায়তা করে।

৩. চুলের পুষ্টি

দুধের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অ্যামাইনো অ্যাসিড, যার ফলে চুল ঝরা কমে গিয়ে চুলের স্বাস্থ্য ভালো হয় এবং ঝলমলে হয়ে ওঠে।

৪. ত্বক উজ্জ্বল করে

অনেকেই ত্বকের কমনীয়তা বাড়াতে এবং ত্বককে স্বাস্থ্যজ্জ্বল করতে দুধের সর বা মালাই মুখে মাখেন। কিন্তু দুধ খেলেও কিন্তু ত্বক উজ্জ্বল হয় এবং তারুণ্যে ভরপুর থাকে। দুধে ভিটামিন বি১২ ও থাকে যা ত্বকের ইল্যাস্টিসিটি বজায় রাখতে সাহায্য করে ফলে অকালে চামড়া ঝুলে যায়না এবং ত্বক নরম ও তরতাজা থাকে।

৫. হার মজবুত করে

দুধে ভিটামিন ডি রয়েছে যা শরীরে ক্যালশিয়াম তৈরি হবার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এবং ক্যালশিয়াম হাড় মজবুত করার জন্য প্রয়োজন। অনেক মহিলারই একটু বয়স হয়ে গেলে অস্টিওআরথ্রারাইটিসের সমস্যা দেখা দেয়, নিয়ম করে প্রতিদিন রাতে দুধ খেলে এইসব রোগব্যাধি থেকে তো মুক্তি পাওয়া যাবেই, সাথে কোনরকম বাতের সমস্যাও শরীরে বাসা বাঁধতে পারবেনা।

৬. মানসিক চাপ মুক্ত করে

দুধের অন্য একটি বড় গুণ হচ্ছে এটি মানসিক চাপ দূর করতে সহায়তা করে। দুধ পানে ঘুমের উদ্রেক হয়, যার ফলে মস্তিষ্ক শিথিল হয়ে যায় এবং মানসিক চাপ দূর হয়। সারাদিনের মানসিক চাপ দূর করে শান্তির নিদ্রা চাইলে প্রতিদিন রাতে ১ গ্লাস কুসুম গরম দুধ পান করা উচিৎ।

৭. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে

কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা থাকলে রাতে ঘুমনোর আগে প্রতিদিন এক গ্লাস গরম দুধ পান করুন। এতে সুফল পাবেন।

৮. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে

দুধে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, ভিটামিন, মিনারেল রয়েছে যা দেহের ইমিউন সিস্টেম উন্নত করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এটি কলেস্টোরল নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং রক্ত পরিষ্কারের পাশাপাশি রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে।

Check Also

ঘুমের ভেতর নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসে কেন? জেনেনিন কি বলছে গবেষণা

নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে ছিলেন আরাম করে। হঠাৎ নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে এলো, ভেঙে গেল ঘুম। ঘুম ভেঙেই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *